বেনাপোল বন্দরে ইয়ার্ড সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধন করলেন রেলওয়ের মহাপরিচালক শামছুজ্জামান

AUTHOR: durnitirsondhane
POSTED: সোমবার ১১ জানুয়ারি ২০২১at ১০:৪৪ অপরাহ্ণ
FILED AS: ভিডিও
38 Views

মনা বেনাপোল (যশোর)
প্রতিনিধি: বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনের গুডস ইয়ার্ড সম্প্রসারণ কাজের ভিত্তি স্থাপনা উদ্বোধন করেছেন বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মোঃ শামছুজ্জামান। রবিার (১০ জানুয়ারী) সকাল ১১ টার দিকে বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনে বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) মিহির কান্তি গুহর সভাপতিত্বে উদ্বোধন আনুষ্ঠানটি সম্পুর্ন হয়েছে। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মোঃ শামছুজ্জামান বলেন, বর্তমানে বেনাপোল বন্দরের রেলওয়ের ইয়ার্ড না থাকায় আমদানি বানিজ্যে ব্যাপক ব্যাহত হচ্ছে। সেজন্য রেলপথে আমদানি বানিজ্য আরো গতিশীল করতে
বেনাপোল রেলস্টেশনে আজ প্রথমে দুটি গুডস ইয়ার্ড তৈরির ভিত্তি স্থাপনা এর উদ্বোধন করা হয়েছে। এবং পরবর্তীতে আরো গুডস ইয়ার্ড তৈরি করা হবে। যাতে করে বেনাপোল বন্দর দিয়ে রেলপথে আমদানি বানিজ্য আরো গতিশীল হবে। এদিকে বেনাপোল কাস্টমস হাউজের কমিশনার আজিজুর রহমান বলেন, সরকার বেনাপোল বন্দর থেকে বছরে প্রায় ৬ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব পায়। করোনা
কালীন সময়ে শুধু রেলপথে আমদানি পণ্য থেকে সরকার ৩০০ কোটি টাকা রাজস্ব পেয়েছে। এই রেল পথে ইয়ার্ড তৈরি হলে সরকার আরো বেশি রাজস্ব পাবে। বেনাপোল স্থলবন্দরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক আব্দুল জলিল জানান, আগে বেনাপোল বন্দরে রেলপথে খুব সীমিত আকারে আমদানি হতো। বর্তমানে করোনার কারনে স্থল পথে আমদানি রপ্তানি বন্ধ থাকায় বানিজ্য স্থবির হয়ে পড়ে। যার ফলে আমদানি রপ্তানি বানিজ্য গতিশীল করতে বেনাপোল বন্দরের রেলপথে আমদানিতে ব্যাপক সাড়া ফেলে। তবে বন্দরে ইয়ার্ড না থাকায় রেলপথে আমদানিতে অনেক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এই সমস্যার বিষয়টি উর্ধতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছিল। পরবর্তীতে উর্ধতন কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বেনাপোল রেলপথে আমদানি বানিজ্য সপ্রসারনে বেনাপোলে দুটি গুডস ইয়ার্ড তৈরির অনুমতি দেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজ বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনের দুটি ইয়ার্ড তৈরির ভিত্তি স্থাপনার উদ্বোধন করা হয়েছে। এবং খুব দ্রত ইয়ার্ড তৈরির কাজ শুরু হবে। এসময় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভাগীয় রেল মহাব্যবস্থাপক (পাকশি) শাইদুল ইসলাম, রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলি (রাজশাহী) আবু ফাত্তা মাছুদুর বহমান, বেনাপোল কাস্টমস হাউজের কমিশনার আজিজুর রহমান, বেনাপোল স্থলবন্দরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক আব্দুল জলিল, বেনাপোল সিএন্ডএফ সোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজনসহ আমদানি রপ্তানির সাথে জড়িত বিভিন্ন সংগঠনের নেতা কর্মীরা।


[bwitSDisqusCom]