ঢাকা-১৮ আসন উপ’নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী,দূর্ণীতিবাজ ভূমিদস্যু, অনুপ্রবেশকারী ও ঋণ খেলাপীরা

AUTHOR: durnitirsondhane2
POSTED: শনিবার ২৯ আগস্ট ২০২০at ১২:১০ পূর্বাহ্ণ
106 Views

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের অকাল মৃত্যুতে ঢাকা-১৮ আসনটি শূন্য হয় কেননা আসনটিতে গত ১২ বছর ধরে সংসদ সদস্য ছিলেন সাহারা খাতুন। তাই শূন্য আসনটি পূর্ন করার জন্য উপনির্বাচনের দিন ধায্য করে ।তার পেক্ষিতে ঢাকা-১৮ আসন আওয়ামী লীগের সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেন দূর্ণীতিবাজ ভূমিদস্যু ঋণখেলাপী টেন্ডারবাজরা,তার মধ্যে বাদ যায়নি দেশের কেসিনো সম্রাট ও অর্থ মানিলন্ডারিং মামলার আসামী জিকে শামীমের আইজিবি,মোমতাজ উদ্দিন মেহেদি,ও পাপীয়া কান্ডের মূল হোতা নাজমা আক্তার সহ আরো অনেক অভিযুক্ত ব্যক্তি।তাদের মনোনয়ন নেয়া’তে উত্তরাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে রাস্তায় নামার ঘটনা ও ঘটেছে,কেননা সাহারা খাতুনের মতো এমন একজন সৎ নিষ্ঠাবান ত্যাগি নেত্রী আসনে এসব কুলশিত দূর্নীতিবাজ লোকরা মনোনয়ন কিনবে তা উত্তরাবাসী কখন ও আশা করে নি।ধারনা করা হচ্ছে জিকে শামীমের টাকা দিয়ে জিকে শামীমের নির্দেশে মনোনয়ন ফরম নিয়ে জমা দিয়েছেন এ্যাড মোমতাজ উদ্দিন মেহেদী।এরই মধ্যে জিকে শামীমের মামলার আইনজীবি মোমতাজ উদ্দিন মেহেদী’কে গত ২৬ আগষ্ট বুধবার দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)তলব করেছেন।কি জন্য তলব করেছেন তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না ।অন্যদিকে পাপীয়ার পাপের টাকা দিয়ে নাজমা আক্তার মনোনয়ন নিয়েছেন।ঢাকা-১৮ আসন উপনির্বাচন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কড়া হুশিয়ারী দিয়েছেন যে সাহারা খাতুন দলের একজন নিবেদিত প্রাণ ছিলেন তার আসনে সৎ পরিচ্ছন ক্লিন ইমেজের একজন মানুষ দিবেন,যাতে করে উত্তরাবাসী তার মাঝে সাহারা খাতুন কে খুঁজে পায়। কিন্তু দুংখের বিয়য় হলো এমন একটি আসনে ৫৬ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী কোথা থেকে আসে,তাদের মধ্যে অনেকের বিরুদ্ধে হাজারো অভিযোগ। তার মধ্যে নাজমা আক্তার পাপিয়া কেলেঙ্কারির সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিলেন।

পোশাক ব্যবসায়ি খসরু ঋণ খেলাপী,ঋনের দায়ে দীর্ঘ দিন তিনি পালিয়ে ছিলেন , তোফাজ্জল উড়ে এসে জুডে বসতে চাচ্ছেন এক কথায় দলের অনুপ্রবেশ কারীদের মধ্যে একজন, হাবীব আহসান ভূমি দস্যু ,মমতাজুল করিমের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের অর্জনের জন্য দুদকে অভিযোগ রয়েছে। এরকম প্রায় সবার বিরুদ্ধে দুর্নীতি অভিযোগ এমন একটা গুরুত্বপূর্ণ আসনে ক্লিন ইমেজের লোক খুব প্রয়োজন।তাই ধারনা করা হচ্ছে সাহারা খাতুনের জায়গা এমন একজন নেতার প্রয়োজন যার বিরুদ্ধে দলের কোনো অভিযোগ নেই কোনো অনিয়মের অভিযোগ এক কথায় ক্লিন ইমেজের লোক হতে হবে তাহলে উত্তরাবাসী সাহারা খাতুন’কে হারানোর শোক ভুলতে পারবেন।সর্বোপরি উত্তরা বাসীর একটাই চাওয়া সাহারা খাতুনের জায়গা একজন ক্লিন ইমেজের নেতার খুব প্রয়োজন, দূর্ণীতিবাজদের কে এই আসনে দিলে সাহারা খাতুন কে কষ্ট দেয়া হবে ।


[bwitSDisqusCom]