জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মাদ্রাসা শিক্ষার সর্বস্তরেই চোখে পড়ার মতো অগ্রগতি সাধিত হয়েছে,ড. আবু রেজা নদভী এমপি

AUTHOR: News Admin
POSTED: শনিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০at ৯:৪১ অপরাহ্ণ
132 Views

জাহাঙ্গীর আলম,বিশেষ প্রতিনিধিঃ
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শিক্ষার সর্বস্তরেই চোখে পড়ার মতো অগ্রগতি সাধিত হয়েছে, প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম-১৫ সাতকানিয়া লোহাগাড়া আসনের সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী বলেছেন, তিনি আরো বলেন, শিক্ষার আলোয় আলোকিত পুরো বাংলাদেশ। গত কয়েক বছরে বদলে গেছে শিক্ষাক্ষেত্র, পাল্টে গেছে সামাজিক এবং অর্থনৈতিক পরিস্থিতি। বিগত যেকোনো সময়ের তুলনায় শিক্ষাবিস্তারে বর্তমান সরকারের অসামান্য অবদানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, নতুন নতুন স্কুল-কলেজ-মাদরাসা এমপিওভূক্ত ও সরকারীকরণের পাশাপাশি অবকাঠামোগত উন্নয়নে সরকার কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ দিচ্ছে। ১০০০ মাদ্রাসার ভৌত অবকাঠামো উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা বর্তমানে চলমান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদ্রাসা শিক্ষা ও আলেম ওলামাদের প্রতি অত্যন্ত সংবেদনশীল উল্লেখ করে ড. নদভী বলেন, আলীয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা জাতির মূল স্রোতের সাথে সম্পৃক্ত থেকে সব সুযোগ সুবিধা পেয়ে আসলেও দেশের বিশাল জনগোষ্ঠী কওমী শিক্ষার্থীরা বরাবরই বঞ্চিত ছিল। আলীয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি কওমী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের জাতির মূল স্রোতের সাথে সম্পৃক্ত করার ঐতিহাসিক ও যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। সরকার কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের দাওরায়ে হাদিস সনদকে ইসলামিক স্টাডিজ ও আরবির মাস্টার ডিগ্রির সমমান হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার পর এখন কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা সরকারি চাকরি পাচ্ছে। এককথায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যুগান্তকারী পদক্ষেপের ফলে গত কয়েক বছরে মাদরাসা শিক্ষার অগ্রগতি পাল্টে দিয়েছে দেশের গোটা শিক্ষা ব্যবস্থার চালচিত্র।
চট্টগ্রাম ২২ ফেব্রুয়ারি শণিবার দুপুর ১টায় সাতকানিয়া উপজেলার গারাংগিয়া ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসায় শিক্ষা ও প্রকৌশল বিভাগের আওতায় চার কোটি টাকা ব্যয়ে বহুতল বিশিষ্ট একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা গুলো বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আহসান সাইয়েদ বলেছেন, মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য সরকার সম্ভব সব কিছু করছে। তিনি বলেন, জাতীয় শিক্ষানীতিতে মাদ্রাসা শিক্ষাকে জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থায় একটি অবিচ্ছেদ্য অংশরূপে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

পীর সাহেব গারাংগিয়া হযরত শাহ মাওলানা মুহাম্মদ আনওয়ারুল হক ছিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও সাংসদের একান্ত সচিব এরফানুল করিম চৌধুরী ও মাস্টার মহিউদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইদ্রিছ, চট্টগ্রামের শিক্ষা ও প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাতকানিয়ার কৃতি সন্তান জালাল উদ্দিন চৌধুরী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আব্দুশ শুকুর, চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুর আহমদ, হাফেজ মোহাম্মদ ইদ্রিছ সিআইপি, সাবেক চেয়ারম্যান ওসমান গণি চৌধুরী, উপজেলা আওয়মীলীগের সদস্য আবু ছালেহ, মাস্টার আবু তাহের, এডিশনাল পিপি কামাল উদ্দিন, এটিএম রশিদ উদ্দিন শাহীন, কবি এ.আর.এম মহিউদ্দিন রাশেদ, সোনাকানিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মেম্বার মনিউল আলম, লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য গনি সম্রাট, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক জহির উদ্দিন, সাংসদের সহকারী একান্ত সচিব শাহাদত হোসাইন শাহেদ, যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান মিজান, দেলোয়ার হোসেন বেলাল, সাতকানিয়া পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইদ্রিছ প্রমুখ। । স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নুরুল আজিম।

এছাড়া সকাল ১১টায় পদুয়া আইনুল উলুম কামিল মাদ্রাসায় শিক্ষা ও প্রকৌশল বিভাগের আওতায় বহুতল বিশিষ্ট একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন করেন। অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অধ্যক্ষ মাহমুদুল হাসান আনছারী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আব্দুশ শুকুর, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকির হোসাইন মাহমুদ, পদুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আফছার আহমদ খান, চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন প্রমুখ।


[bwitSDisqusCom]